Search
You Have Notification
Home » Category » Life Story
আচ্ছা তুমি কি আমার আকাশের বৃষ্টি হবে Posted by , 11 months ago, 73 Views
বহুদিন ধরে খালার বাসায় যাওয়া হয় না। অবশ্য এর কারণ তো আছেই। যাওয়ার ইচ্ছে ছিলো না তবুও একজনের প্রতি খুব মায়া কাজ করছে কিছুদিন ধরেই। সেই সকালে আমাকে ফোন করেছিলো আমায় নাকি খালা খুব দেখতে চাচ্ছে। অবশ্য জানি কে দেখতে চাচ্ছে সে নাকি খালা। সে মানুষটি আমার খালাতো বোন বৃষ্টি। আজ থেকে একবছর আগে আমাকে প্রপোজ করেছিলো সে। তার প্রতি কোনো রকম ভালোলাগা ছিলো না বলে সেদিন ই না করে দিয়েছিলাম। তবে প্রধানত ভাবতাম একটায় বিষয় ই ছোট মানুষ আবেগবশত প্রপোজ করেছে। যদিও তেমন ছোট না আমার থেকে বছর খানেক এর ছোট। সকালে যখন ফোন করে বললো.. –একটু কি আসবেন আমাদের বাসায়? –কেন? –আম্মু আপনাকে দেখতে চাচ্ছে কথার উপর সাত পাঁচ না ভেবেই হ্যা বলে দিয়েছিলাম। সে যায় হোক যাওয়া হয় না বহুদিন ধরে অন্তত যাওয়া উচিৎ এবার। বিকালের ট্রেন ধরলাম। যাওয়াটা বেশি দূর না তবুও দু ঘন্টার পথ। পৌছাতে পৌছাতে রাত হয়ে গেলো। নিঃশব্দ চোরের মত গিয়ে কলিং বেল চাপলাম। একবার দুবার তিনবারের পর খুললো দরজা। মেজাজটা গরম হয়ে গিয়েছিলো। কিন্ন্তু বৃষ্টির গলায় সরি নামক শব্দটা শুনে শান্ত হয়ে গেলাম। নিজেই বুঝতে পারছি না আমি কি তাকে ভালোবাসি। সে চিন্তাটা বেশ প্রকট ভাবেই মনে আঘাত আনলো। সে যায় হোক মনে হয় ওর ভালোবাসাটা আবেগের নই। খালা তো আমায় দেখে অবাক। হুট করে কিভাবে আসলাম। এমনি প্রশ্নটাও করে বসলো –বাবা কিভাবে হুট করে তুই আজ? এখন আর সন্দেহ রইলো না আমাকে কে দেখতে চাইছিলো –এই তো মন চাইলো তোমায় দেখতে –এতদিন কেন আসিস নি? –এই এমনি –তোর কথা তো প্রায় ই বলতো বৃষ্টি কেন আসিস না। যোগাযোগ ও নাকি করিস না বৃষ্টিকে দেখলাম লজ্জা পেলো। খালাকে উঃ দেবার আগেই বলে উঠলো –যাহ হাতমুখ ধুয়ে আয়। হাতমুখ ধুয়ে খাওয়া দাওয়াটা সম্পন্ন করলাম। খালার সাথেও বেশ অনেকক্ষণ কথা বললাম। কিন্তু বৃষ্টি কোনো কথা বলছে না আমার সাথে। এমনকি কোথাও দেখছিও না। সর্বশেষে ছাদে গেলাম হুম ছাদেই পেলাম। তবে একা একা বসে আছে চুপটি করে। সামনে গিয়ে ওর পাশে বসলাম। –কি ব্যাপার আমার সাথে কথা বলছো না যে –কই তুমিই তো ব্যাস্ত তাই তো সুযোগ ই হয় নি। কেনো জানি অদ্ভুত পরিবর্তন লক্ষ্য করলাম তার মাঝে। আগের থেকে অনেক শান্ত হয়ে গেছে। –ছাদে একা বসে আছো কেন? –এমনিতেই –আচ্ছা আমায় কি খুব দেখতে ইচ্ছে হচ্ছিলো নাকি? –অনেকটা এরকমি –ভালোবাসো এখনও আমায়? –হুমম। মনটা তো হাজার জনকে দেওয়া যায় না –কিন্তু আমি তো তোমায় ভালোবাসি না –জানি –সত্যি –মনে হয় –আচ্ছা তুমি কি আমার আকাশের বৃষ্টি হবে? –মজা করছো –না তো –আমার বিশ্বাস হচ্ছে না যে। যে মানুষটা আমার কোনো খোঁজ নেই নি সে হুট করে আজ এমন বললে তো বিশ্বাস না হওয়ার ই কথা –আসলে আমি বুঝে উঠতে পারছিলাম না। আমি কি তোমায় সত্যিই ভালোবাসি এবং তুমিও কি আমায় ভালোবাসো –এখন কি মনে হয় –ভালোবাসো আমায় এবং আমিও তোমায় –তাহলে আর কি হয়েই তো গেলো –ভালোবাসা –তুমি কিন্তু আমার আকাশে বৃষ্টি হবে বলো নি — হবো তো হবো –লাভ ইউ বৃষ্টু –হি হি হি লাভ ইউ তাসিন। নো নো লাভ ইউ তাসু…………. #Alamin
Related Post
  1. › hi
  2. › বাসায় যখন বিয়ের কথা চলে
  3. › আজ মেয়ে দেখতে আসবার পর মেয়েকে আর আমাকে যখন আলাদা করে ছাদে পাঠানো হলো কথা বলার জন্য
  4. › টক মিষ্টি ঝাল ঝাল ভালোবাসার গল্প
  5. › বাসার ছাদ থেকে ঢাকা শহর টা বেশ সুন্দরই লাগছে

Leave a Reply

Topics

Blogroll